কিয়ামতের ১৪১ টি আলামত বা কেয়ামতের পূর্ব লক্ষণ

কিয়ামতের-১৪১-টি-আলামত-কেয়ামতের আলামত কয়টি

কিয়ামতের ১৪১ টি আলামত বা কেয়ামতের পূর্ব লক্ষণ

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম; আজকের আলোচনার বিষয় কিয়ামতের নিদর্শন বা আলামত বা লক্ষণ সমূহ কয়টি ও কি কি। কুরআন ও হাদিস থেকে কেয়ামতের মোট ১৪১ টি আলামত বা নিদর্শন পাওয়া যায়। যেগুলি প্রধানত দুই ভাগে ভাগ করা যায়।

১. কিয়ামতের বড় আলামত

২. কিয়ামতের ছোট আলামত

কিয়ামতের বড় আলামত

যেগুলি ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ হলে পরক্ষণেই কিয়ামত সংঘটিত হয়ে যাবে। এর সংখ্যা দশটি।

হযরত হুযায়ফা রা. বলেনঃ আমরা পরস্পর আলাপরত ছিলাম, নবী করীম সা. এসে জিজ্ঞেস করলেন- তােমরা কি প্রসঙ্গে আলােচনা করছিলে? সবাই বলল- কিয়ামত প্রসঙ্গে। তখন নবী সঃ বলতে লাগলেন, কিয়ামত সংঘটিত হবে না, যতক্ষণ না তােমরা দশটি (বহৎ) নিদর্শন প্রত্যক্ষ করঃ

০১. ধোঁয়া

০২. দাজ্জাল

০৩. দাব্বাতুল আরদ বা অদ্ভুত প্রাণী 

০৪. পশ্চিম দিগন্তে প্রভাতের সূর্যোদয়

০৫. মরিয়ম-তনয় ঈসা-র পৃথিবীতে প্রত্যাগমন 

০৬. ইয়াজুজ-মাজুজের উদ্ভব

০৭. প্রাচ্যে ভূমিধ্বস 

০৮. পাশ্চাত্যে ভূমিধ্বস 

০৯. আরব উপদ্বীপে ভূমিধ্বস। 

১০. সবশেষ ইয়েমেন থেকে উত্থিত হাশরের ময়দানের দিকে তাড়নাকারী বিশাল অগ্নি।

সহিহ মুসলিম

কিয়ামতের ছোট আলামত

কিয়ামতের ছোট আলামত সমূহের সংখ্যা মোট ১৩১টি। এগুলি আবার দুই প্রকারঃ 

প্রথম ভাগঃ যেগুলি প্রকাশিত হয়েছে। এর সংখ্যা ৮৬টি।

দ্বিতীয় ভাগঃ যেগুলি প্রকাশিত হয়নি। এর সংখ্যা ৪৫ টি। সেগুলি আবার তিন ভাগে ভাগ করা যায়।

১. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার আগে না পরে প্রকাশিত হবে তা অস্পষ্ট। এর সংখ্যা ২৪ টি।

২. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার আগে প্রকাশিত হবে। এর সংখ্যা ১২ টি।

৩. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার পরে প্রকাশিত হবে। এর সংখ্যা ৯ টি।

প্রথম ভাগঃ যেগুলি প্রকাশিত হয়েছে তার সংখ্যা ৮৬টি। যথাঃ

০১. শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নবুওয়াত প্রাপ্তি

০২. নবী মুহাম্মদ সা.এর ইন্তেকাল 

০৩. চন্দ্র বিদারণ 

০৪. সাহাবা যুগের অবসান 

০৫. বায়তুল মাকদিস (জেরুজালেম) বিজয়

০৬. ছাগলের কুআস রোগের ন্যায় মানুষের ব্যাপক প্রাণহানি

০৭. একের পর এক ফেতনার আবির্ভাব 

০৮. স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল আবিষ্কার 

০৯. মুসলমানদের আভ্যন্তরীণ সিফফীন যুদ্ধ

১০. ভ্রষ্ট খারেজী সম্প্রদায়ের আত্মপ্রকাশ 

১১. মিথ্যা নবুওয়াত দাবীদারদের আত্মপ্রকাশ 

১২. শান্তি, নিরাপত্তা এবং সচ্ছলতার জয়-জয়কার 

১৩. হেজায ভূমিতে বিশাল অগ্নি প্রকাশ 

১৪. তুর্কীদের সাথে মুসলমানদের যুদ্ধ 

১৫. চাবুকে আঘাতকারী অত্যাচারী ব্যক্তিবর্গের আবির্ভাব 

১৬. হানাহানি, সংঘাত এবং ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ 

১৭. মানুষের হৃদয় থেকে আমানতদারী তথা বিশ্বস্ততার বিদায়

১৮. পূর্ববর্তী পথভ্রষ্ট জাতির পদাঙ্ক অনুসরণ 

১৯. দাসীর গর্ভ থেকে মনিবের জন্ম গ্রহণ 

২০. স্বল্প কাপড় পরিহিত নগ্ন মহিলাদের আত্মপ্রকাশ

২১. সুউচ্চ বাড়িঘর নির্মাণে নগ্নপদ আরব্য রাখালদের প্রতিযােগিতা 

২২. ব্যক্তিবিশেষে সালাম প্রদান 

২৩. বাণিজ্য ব্যাপক আকার ধারণ 

২৪. স্বামীর সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসায় স্ত্রীর অংশগ্রহণ 

২৫. সারা বাজারে মুষ্টিমেয় ব্যবসায়ীর প্রভাব 

২৬. ব্যাপকহারে মিথ্যা সাক্ষ্য প্রদান 

২৭. ব্যাপকহারে সত্য সাক্ষ্য গােপন

২৮. দ্বীন সম্পর্কে মূখতা ব্যাপক আকার ধারণ 

২৯. ব্যয়কুণ্ঠতা ও কার্পণ্যতা ব্যাপক আকার ধারণ 

৩০. ব্যাপকহারে আত্মীয়তার বন্ধন ছিন্ন করণ 

৩১. প্রতিবেশীর সাথে দুর্ব্যবহার

৩২. অশ্লীলতা ব্যাপক আকার ধারণ 

৩৩. বিশ্বস্তকে বিশ্বাসঘাতক এবং বিশ্বাসঘাতককে বিশ্বস্ত জ্ঞান

৩৪. মর্যাদাবান ব্যক্তিদের বিলুপ্তি এবং অধীনস্থতা প্রকাশ 

৩৫. সম্পদ অর্জনে হালাল হারাম বিবেচনার বিলুপ্তি

৩৬. যুদ্ধলব্ধ সম্পদকে রাষ্ট্রীয় সম্পদ জ্ঞান 

৩৭. আমানতের বস্তুকে খরচের বস্তু জ্ঞান 

৩৮. যাকাত আদায়কে জরিমানা জ্ঞান

৩৯. আল্লাহর জ্ঞান ছেড়ে পার্থিব জ্ঞান অর্জনে মনােনিবেশ 

৪০. মায়ের অবাধ্য হয়ে স্ত্রীকে সন্তুষ্টকরণ 

৪১. জন্মদাতা পিতাকে দূরে ঠেলে দিয়ে বন্ধু-বান্ধবকে কাছে আনয়ন 

৪২. আল্লাহর ঘর মসজিদে উচ্চস্বরে হৈ হুল্লোড়

৪৩. গােত্রীয় সম্প্রদায়ে পাপিষ্ঠদের নেতৃত্ব দান 

৪৪. জাতির নেতৃত্বে সর্বনিকৃষ্ট ব্যক্তিদের আগমন 

৪৫. আক্রমণের ভয়ে মানুষকে সম্মান দেখানাে। 

৪৬. মেয়েদের সাথে অবাধ মেলামেশা বৈধ জ্ঞান 

৪৭. রেশমি কাপড়ের ব্যাপক ব্যবহার 

৪৮. মদ্যপান হালাল জ্ঞান। 

৪৯. গান-বাদ্য ও নর্তকীর নৃত্য বৈধ জ্ঞান 

৫০. ফেতনার আধিক্যে মানুষের মৃত্যু কামনা

৫১. সকালে মুমিন থাকবে বিকালে কাফের হয়ে যাবে -এমন কালের আগমন 

৫২. মসজিদগুলােকে অধিক সুসজ্জিত করার প্রতিযােগিতা 

৫৩. ঘরবাড়ী ডিজাইন এবং রকমারি কারুকার্য করণ 

৫৪. অধিক হারে আকাশ থেকে বজ্র বর্ষণ

৫৫. ব্যাপকহারে লেখালেখি এবং পুস্তক প্রকাশ

৫৬. মুখ দিয়ে সম্পদ উপার্জন এবং তা নিয়ে গর্ব করা

৫৭. কুরআন ছেড়ে অন্যান্য গ্রন্থাদির প্রচার প্রসার 

৫৮. জ্ঞানী এবং দ্বীনের বাহকদের অভাব এবং কুরআন পাঠকের প্রভাব

৫৯. ছােট ও স্বল্পজ্ঞানীদের কাছে এলেম অন্বেষণ 

৬০. আকস্মিক মৃত্যুর হার বৃদ্ধি 

৬১. নির্বোধ লােকদের নেতৃত্ব 

৬২. দ্রুত গতিতে সময় পার 

৬৩. বড় বিষয়ে নিচু লােকদের বাক-যুদ্ধ

৬৪. দুনিয়ার সবচে সৌভাগ্যশীল ব্যক্তি- লুকা ইবনে লুকা 

৬৫. মসজিদকে যাতায়াত ও পারাপারের পথ হিসেবে ব্যবহার 

৬৬. মােহরের মূল্যবৃদ্ধি অতঃপর হ্রাস

৬৭. অশ্বের মূল্যবৃদ্ধি অতঃপর হ্রাস

৬৮. বাজার ও দোকানপাট নিকটবর্তী হয়ে যাওয়া

৬৯. মুসলিম বিশ্বের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সকল বিধর্মী রাষ্ট্রের একক অবস্থান 

৭০. নামাযের ইমামতিতে মুসল্লিদের ধাক্কাধাক্কি

৭১. মুমিনের সত্য স্বপ্ন 

৭২. মিথ্যা ব্যাপক আকার ধারণ 

৭৩. পরস্পর হিংসা বিদ্বেষ প্রকাশ 

৭৪. ব্যাপকহারে ভূ-কম্পন সৃষ্টি 

৭৫. নারী জাতির আধিক্য 

৭৬. পুরুষ জাতির হ্রাস 

৭৭. প্রকাশ্য অশ্লীলতা ও ব্যভিচার

৭৮. কোরআন পড়ে বিনিময় গ্রহণ 

৭৯. ব্যাপকহারে মানুষের দেহে মাংসলতা ও স্থূলতা বৃদ্ধি 

৮০. কামনা ছাড়াই সাক্ষ্য দিতে রাজী এমন লোকদের আত্মপ্রকাশ

৮১. মানত করে পূর্ণ করে না এমন ব্যক্তিদের আত্মপ্রকাশ 

৮২. সমাজের উচ্চপদস্থ লােক কর্তৃক গরিবদের মাল-সম্পদ কৌশলে লুট 

৮৩. আল্লাহর নাযিলকৃত বিধানের বাস্তবায়ন পরিত্যাগ 

৮৪. রােমান অর্থাৎ খৃষ্টানদের আধিক্য এবং আরব অর্থাৎ মুসলিমদের হ্রাস।

৮৫. নিত্যনতুন অত্যাধুনিক যান বাহন (গাড়ী, বাস, ট্রেন, প্লেন ইত্যাদি) আবিষ্কার

৮৬. মক্কা নগরীর ভবনগুলাে আকাশ-সম উঁচু করে নির্মাণ

দ্বিতীয় ভাগঃ যেগুলি প্রকাশিত হয়নি তার সংখ্যা ৪৫ টি; সেগুলিকে আবার তিন ভাগে ভাগ করা যায়।

১. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার আগে না পরে প্রকাশিত হবে তা স্পষ্ট নয় তার সংখ্যা ২৪ টি।

০১. মানুষের মাঝে ধনসম্পদের অত্যাধিক্য দেখা দেবে

০২. ভূমির আভ্যন্তরীণ খনিজ সম্পদ প্রকাশ পাবে

০৩. চেহারা বিকৃতির ঘটনা বৃদ্ধি পাবে

০৪. ভূমিধ্বস এর আবির্ভাব হবে

০৫. আকাশ থেকে পাথর নিক্ষেপিত হবে

০৬. ফসলহীন বৃষ্টি হবে অর্থাৎ বৃষ্টি হলেও ফসলে বরকত হবে না

০৭. ব্যাপক ফিতনা যা আরবদেরকে প্রায় শেষ করে দিবে

০৮. ইরাকের ফুরাত নদীতে স্বর্ণের খনি উন্মােচিত হবে

০৯. প্রকাশ্য অপরাধ করতে কিংবা অক্ষমতাকে মেনে নিতে  বাধ্য করা হবে

১০. আরব উপদ্বীপ সবুজ শ্যামল পরিবেশ এবং নদীনালায় পূর্ণ হবে

১১. নতুন চাঁদ বড় আকারে দেখা যাবে

১২. সকল মুসলমান শামে হিজরত করবে 

১৩. পর্বতমালা নিজ জায়গা থেকে সরে যাবে

১৪. কাহতান গােত্র থেকে এক মহান মান্যবর ব্যক্তির আবির্ভাব হবে

১৫. জাহজাহ নামক ব্যক্তির আত্মপ্রকাশ ঘটবে

১৬. চতুষ্পদ জন্তু এবং জড়বস্তুর সাথে মানুষ কথা বলবে

১৭. লাঠির অগ্রভাগের সাথে মানুষ কতা বলবে

১৮. জুতার ফিতার সাথে মানুষ কথা বলবে

১৯. ঘরে কি হচ্ছে উরুর পেশি মানুষকে এর সংবাদ প্রদান করবে

২০. কাবা ঘরে হজ্জ করা বন্ধ হয়ে যাবে

২১. কতিপয় আরব গােত্র মূর্তি পূজায় পুনঃ প্রত্যাবর্তন করবে

২২. কুরাইশ বংশের বিলুপ্তি ঘটবে

২৩. পরবর্তী মুসলমানরা পূর্ববর্তী মুসলমানদের গালমন্দ করবে

২৪. একজন কালাে হাবশী অর্থাৎ বর্তমান ইথিউপিয়ার একজন লােকের হাতে কাবা ঘর ধ্বংস হবে 

২. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার আগে প্রকাশিত হবে তার সংখ্যা ১২ টি।

০১. আহলাছ অর্থাৎ পলায়ন এবং যুদ্ধ এর ফেতনা প্রকাশ পাবে

০২. সচ্ছলতার ফেতনা প্রকাশ পাবে

০৩. অন্ধকার ফেতনার আবির্ভাব হবে

০৪. ইমাম মাহদীর আবির্ভাব হবে

০৫. কাবা ঘরের দিকে ইমাম মাহদীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে আসা বিশাল নামধারী মুসলিম বাহিনী মাটির নিচে ধ্বসে যাবে

০৬. মুসলমান এবং রােমান অর্থাৎ খৃষ্টানদের মধ্যে বৃহত্তম যুদ্ধ সংঘটিত হবে

০৭. মুসলমানরা কনস্টান্টিনােপল অর্থাৎ বর্তমান তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুল বিজয় করবে। সেনাপতি মুহাম্মদ ফাতেহের নেতৃত্বে ইসলামের প্রাথমিক যুগে একবার বিজয় হয়েছিল। তবে শেষ জমানায় ইমাম মাহদীর বাহিনী পূনরায় তা বিজয় করবে ইনশাআল্লাহ

০৮. মীরাছ অর্থাৎ ত্যাজ্য সম্পদ বণ্টনের সুযােগ থাকবে না 

০৯. গণিমত অর্থাৎ যুদ্ধলব্ধ সম্পদ নিয়ে আনন্দ উল্লাসের সুযােগ থাকবে না 

১০. তীর তলােয়ার এবং অশ্বের যুগ পুনঃ প্রত্যাবর্তন করবে

১১. বায়তুল মাকদিস অর্থাৎ জেরুজালেমের আশেপাশে জনবসতি বৃদ্ধি পাবে

১২. বিনাশের সম্মুখীন হয়ে মদিনা বসতি ও আগন্তুক শূন্য হয়ে যাবে 

৩. যেগুলি কিয়ামতের বড় ১০টি আলামত প্রকাশ পাওয়া শুরু হওয়ার পরে প্রকাশিত হবে তার সংখ্যা ৯ টি।

১. মদিনা থেকে সকল কাফের মুনাফিক বের হয়ে যাবে

২. মুসলমানদের সাহায্যে বৃক্ষকুল কথা বলবে

৩. মুসলমানদের সাহায্যে পাথর কথা বলবে

৪. ইহুদীদের বিরুদ্ধে মুসলমানদের সর্বশেষ যুদ্ধ হবে এবং মুসলিমরা বিজয়ী হবে

৫. একটি মাত্র সেজদা সারা দুনিয়া অপেক্ষা শ্রেষ্ঠতা লাভ করবে

৬. এমন বৃষ্টি, যা সকল জনপদকে ভাসিয়ে নিয়ে যাবে 

৭. মুমিনদের রূহ ছাড়িয়ে নিতে আল্লাহর পক্ষ থেকে সুবাতাস প্রেরণ করা হবে

৮. কেয়ামতের পূর্বমুহূর্তে সকল মুমিনের মৃত্যু হবে

৯. কাগজের পাতা এবং মানুষের অন্তর থেকে কুরআন উঠিয়ে নেয়া হবে।

কেয়ামতের ১৪১ টি আলামত বা কেয়ামতের লক্ষণসমূহ

Tags: কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের আলামত কি কি, কিয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের আলামত সম্পর্কিত হাদিস, কিয়ামতের আলামত সমূহ কয়টি, কিয়ামতের আলামত হাদিস, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের ছোট আলামত কয়টি, কিয়ামতের বড় আলামত কয়টি, কিয়ামত কখন হবে, কিয়ামতের আলামতসমূহ কয়টি, কিয়ামত এর আলামত কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের আলামত সম্পর্কে হাদিস, কিয়ামতের ১৪১ টি আলামত, কিয়ামতের লক্ষণ সমূহ কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের লক্ষণ কি কি, কিয়ামতের পূর্ব লক্ষণ কয়টি, কিয়ামতের পূর্বাভাস কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের নিদর্শন সমূহ কয়টি, কিয়ামতের বড় নিদর্শন কয়টি, কিয়ামতের আলামত কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কেয়ামতের আলামত হাদিস, কেয়ামতের আলামত সমূহ কয়টি, কেয়ামত এর আলামত কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কিয়ামতের আলামত কয়টি, কেয়ামতের বড় আলামত কয়টি, কেয়ামতের ১০ টি আলামত, কেয়ামতের আলামত সম্পর্কে হাদিস, কেয়ামতের পূর্ব লক্ষণ কয়টি, কেয়ামতের লক্ষন সমূহ কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, কেয়ামতের নিদর্শন কয়টি, কিয়ামতের আলামত কয়টি, কেয়ামতের আলামত কয়টি, keyamoter alamot bangla, kiamoter alamot

ইউটিউব ভিডিও

2 thoughts on “কিয়ামতের ১৪১ টি আলামত বা কেয়ামতের পূর্ব লক্ষণ

মন্তব্য করুন

Top